জিয়া চ্যারিটেবল মামলায় খালেদা জিয়ার অর্থদণ্ড স্থগিত করেছে হাইকোর্ট

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় নিম্ন আদালতের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আপিল শুনানির জন্য গ্রহন করেছে হাইকোর্ট।একই সাথে অর্থদণ্ড স্থগিতের পাশাপাশি দুই মাসের মধ্যে নিম্ন আদালতের নথি হাইকোর্টে পাঠাতে বলা হয়েছে। নথি না থাকায় বেগম জিয়ার জামিনের আবেদন শোনেনি আদালত।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালতের দেয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিল করেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। গ্রহনযোগ্যতার ওপর শুনানী নিয়ে মঙ্গলবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আপিলটি শুনানীর জন্য গ্রহন করে এ আদেশ দেন। একইসাথে অর্থদণ্ড স্থগিত করে আদেশ দেয়।

বেগম খালেদা জিয়ার আইনজিবিরা জানান, নথি না থাকায় আদালত জামিনের আবেদন শুনেন নি। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় নিম্ন আদালত। একই সাথে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই সাজা হয়েছে মামলার অপর তিন আসামিরও।

আহাম্মেদ সরোয়ার, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

আর্জেন্টিনা-উরুগুয়ে ২-২ গোলে ড্র

মেসির নৈপুণ্যে উরুগুয়ের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ ড্র