আদালত স্থানান্তরের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার রিটের শুনানি ১০ জুন

কেরানীগঞ্জ কারাগারে আদালত স্থানান্তরের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা রিটের শুনানি ১০ জুন পর্যন্ত মুলতবি করেছে হাইকোর্ট। বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলছেন, কেরানীগঞ্জ টেরিটোরিয়াল জুরিসডিকশানের মধ্যেই পড়ে না। অসৎ উদ্দেশ্যেই আদালত স্থানান্তর করা হয়েছে। তবে অ্যাটর্নি জেনারেল বলছেন, কারাগার স্থানান্তরে আইনের কোন ব্যত্যয় হয়নি। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চলা নাইকো মামলা পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পরিত্যক্ত কারাগারে স্থাপিত আদালত কেরানীগঞ্জের কারাগার চত্বরে স্থানান্তর করে ১২ মে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার।

এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট হলে মঙ্গলবার বিচারপতি ফারাহ মাহবুব এবং বিচারপতি খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে এর শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। তবে শুনানি শেষ না হওয়ায় আদালত ১০ জুন পর্যন্ত মুলতবি করে আদেশ দেন। বেগম জিয়ার আইনজীবীরা জানান, নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে আদালত বসানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করা হলে তখন বলা হয়েছিলো মেট্রোপলিটান এলকায় যে কোন স্থানে বসানো যাবে। এ রিটে দুর্নীতি দমন কমিশনকে পক্ষভুক্ত করতে রবিবার বলেছিলো হাইকোর্ট।

You may also like

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে শুরু হয়েছে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট যুদ্ধ

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে আবারো শুরু হয়েছে ভারত- পাকিস্তান