ব্রণ তাড়াতে অ্যালোভেরা

ব্রণের চিকিৎসায় অ্যালোভেরা অন্যতম সেরা উপাদান। প্রাচীনকাল থেকেই রূপচর্চায় জায়গা করে নিয়েছে অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরা পাতার জেল রুক্ষ, শুষ্ক, তৈলাক্ত সকল ধরনের ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে। তাই আজকে আপনাদের ত্বকে ব্রণের সমস্যা সমাধানে রইলো অ্যালোভেরা জেলের তৈরি কিছু ফেসপ্যাক। এতে খুব সহজেই দূর হবে ব্রণের উপদ্রব, ত্বক হবে উজ্জ্বল ও সুন্দর।

একটি অ্যালোভেরা পাতা নিয়ে এর গোড়ার দিকের অংশ কেটে নিন। এরপর কাটা অংশটি নিচের দিকে ধরে রাখুন। এতে করে পাতা থেকে হলদেটে একটি রস বের হবে। এই রসটি পুরোপুরি বের না হওয়া পর্যন্ত এভাবেই রাখুন পাতাটি। এই হলদেটে রসটি ফেলে দিন। হলদেটে রস পড়া বন্ধ হলে পাতাটি ভালো করে ধুয়ে নিন। এরপর পাতার দুইদিকের কাঁটা ভরা অংশ কেটে ফেলে দিন। কাঁটা ফেলে দেবার পর পাতার সবুজ অংশ চেঁছে ফেলে দিন ও ভেতরের স্বচ্ছ জেলের মত অংশ সংরক্ষণ করুন। এটাই অ্যালোভেরা জেল, যা আপনি ফেসপ্যাকে ব্যবহার করতে পারবেন।

ব্রণ দূর করার জন্য আপনার নিত্যদিনের সাধারণ ফেসপ্যাকেই অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে নিতে পারেন। যদি ব্রণের পরিমাণ খুব বেশি না হয় তাহলে মুলতানি মাটি, চন্দন, গোলাপ জল ও অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করুন ও মুখে মাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। ব্রনে খুব জ্বালাপোড়া ও ব্যথা থাকলে অ্যালোভেরা জেল ফ্রিজে জমিয়ে বরফ তৈরি করে নিন ও সেই বরফ আক্রান্ত জায়গায় ঘষুন। ব্রণ সারবে।

ব্রণের সমস্যা সমাধানে অ্যালোভেরা-মধু ফেস প্যাক যে কোনো ধরণের ত্বকে ব্রণের উপদ্রব দেখা যায়। বিশেষ করে তৈলাক্ত ত্বকে এই উপদ্রব হয় অনেক বেশি। যাদের মুখে ব্রণের ভীষণ উপদ্রব, তারা ব্যবহার করতে পারেন এই ফেসপ্যাকটি। এর জন্য আপনার লাগবে শুধু মাত্র অ্যালোভেরা পাতা ও মধু। প্রথমে একটি বড় অ্যালোভেরা পাতা ভালো করে ধুয়ে নিয়ে তা পানিতে সেদ্ধ করে নিন। এরপর সেদ্ধ পাতাটি বেটে বা পিষে পেস্টের মত তৈরি করুন। পেস্টটিতে ২/৩ টেবিল চামচ মধু খুব ভালো করে মেশান। এরপর এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২ বার ব্যাবহারে ত্বকে ব্রণের উপদ্রব থেকে মুক্তি পাবেন।

You may also like

সড়ক দুর্ঘটনায় সারাদেশে নিহত ৯জন, আহত চার শিশুসহ ২৬জন

সড়ক দুর্ঘটনায় রাজবাড়ীতে এক পুলিশ কনস্টেবলসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নারায়ণগঞ্জ,