ভৈরবেও চালের বাজার অস্থির।

সপ্তাহ দুয়েকের ব্যবধানে চালের দাম কেজিতে বেড়েছে প্রায় ১০ টাকা। মিল মালিক ও মজুতদাররা সিন্ডিকেট করেই এই দাম বাড়িয়েছে অভিযোগ ক্রেতাদের। আর আমদানিকারকরা বলছেন, বন্যার কারণে মজুদ কমে যাওয়া ও ভারতে চালের বাজার বেড়ে যাওয়ায় চালের দামে উর্ধগতি।

গত বছর এ সময়ে ভৈরবে আড়ৎ গুলো চালে ভরপুর ছিল।কিন্ত এবারের চিত্র একেবারে ভিন্ন। বাজারে চাল নেই বললেই চলে।

এবার বোরো ধান উঠার আগেই হাওর অঞ্চল সুনামগঞ্জ,নেত্রকোন,হবিগঞ্জ,কিশোরঞ্জে আগাম বন্যার কারণে এ এলাকার অধিকাংশ ধান তলিয়ে যাওয়ায় ব্যাপক ক্ষতি হয়। উত্তরাঞ্চলে বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে ধানের। এছাড়া ভারত থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে চালের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এ সুযোগে মিল মালিক ও মজুতদাররা সিন্ডিকেট করেই এই দাম বাড়িয়েছে বহুগুন। ২৬০০ টাকার মিনিকেটের বস্তা হয়েছে ৩০০০ থেকে ৩১০০ টাকা।

হঠাৎ চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় স্বল্প আয়ের মানুষের পরিবারের আহার জোগাতে খেতে হচ্ছে হিমশিম।

আমদানিকারকরা জানান, ভারত সরকার দফায় দফায় চালের দাম বাড়ানোর কারণে বেড়েছে চালের দাম।

এদিকে, ভৈরব চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি বলেন, বন্যায় ধান ক্ষতি গ্রস্ত হওয়ায় বেড়ে গেছে চালের দাম।

You may also like

এশিয়ান গেমস হকিতে আজ থাইল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

গ্রুপে তৃতীয় জয়ের লক্ষ্য জিমিদের। বাংলাদেশ সময় বিকাল