বাজেটে সমস্যা থাকলে তার সমাধান হবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কোনো সমস্যা থাকলে সেটি আলোচনা করে সমাধান করা হবে। তিনি বলেন, বাজেট প্রস্তাবে সমস্যা থাকতেই পারে। কিন্তু সেটি সেভাবেই রেখে দেয়া হবে না। তিনি সেই সমস্যা নিয়ে সংসদে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের ইঙ্গিত দিয়েছেন।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। নতুন অর্থবছরে চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট দেয়ার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এর আগে এতো বড় বাজেট দেয়া হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নেত্রী বলেছেন, আওয়ামী লীগের পায়ের নিচে নাকি মাটি নেই। কিন্তু মাটি ও মানুষ থেকেই আওয়ামী লীগের জন্ম। বিএনপির জন্ম মাটি থেকে হয়নি। তাদের জন্ম ক্ষমতার উচ্চ শিখর থেকে হয়েছে। আর যাদের জন্ম ক্ষমতার উচ্চ শিখর থেকে হয়, তাদের পায়ের নিচেই মাটি থাকে না।

সাংবাদিকতা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নীতিহীন বা হলুদ সাংবাদিকতা কারো কাছেই গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি বলেন, সবচেয়ে বেশি সমালোচনা হয় সরকারের বিরুদ্ধে। টেলিভিশনের টকশোতেও বক্তারা ইচ্ছা মতো কথা বলে যেতে পারেন। সরকার কখনো বাধা দেয় না। কিন্তু একথা লেখা হয় না যে, ছিয়ানব্বই সালের আগে দেশে কোনো বেসরকারি টিভি চ্যানেল ছিল না, রেডিও ছিল না এবং সংবাদপত্রের সংখ্যাও সীমিত ছিল। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল একুশে টেলিভিশনের অনুমোদন দেয়া হয়। পরে এফএম রেডিওর অনুমতিও দেয়া হয়।

সরকারের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধের যে অভিযোগ বিএনপি করে আসছে তার জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে এখন সাড়ে সাতশো দৈনিক পত্রিকা প্রকাশ হয়। এছাড়াও ৪৬টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল, ২২টি এফএম ও ৩২টি কমিউনিটি রেডিও কাজ করছে। তবে সংবাদ প্রকাশ ও প্রচারের ক্ষেত্রে দায়িত্বশীলতার কথাও মনে করিয়ে দেন তিনি। অনলাইনে ভালো সাংবাদিকতা হচ্ছে বলেও প্রশংসা করেন তিনি।

গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য নতুন ওয়েজবোর্ড চূড়ান্ত হওয়ার কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মালিকদের কারণে এটি আটকে আছে। এখন পর্যন্ত মালিকেরা প্রতিনিধি দেয়নি। মালিকেরা প্রতিনিধি দিলে কাজ শুরু করে দিতে পারে। প্রত্যেক মালিক যেন ওয়েজবোর্ড অনুযায়ী সাংবাদিকদের সুযোগ-সুবিধা দেন সেই আহবান জানান প্রধানমন্ত্রী।

You may also like

আলিবাবার জ্যাক মা সম্পর্কে ৯টি মজার তথ্য

চীনা ইকমার্স জায়ান্ট আলিবাবার সহ প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা।