ভবিষ্যতে বিদ্যুতের ভর্তুকি থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে বিদ্যুতে ভর্তুকি থাকবে না, উৎপাদনে যে খরচ হবে, গ্রাহকের কাছ থেকে তা-ই নেয়া হবে। বিদ্যুৎ ব্যবহারে আরো সাশ্রয়ী হতে জনগণকে অনুরোধও জানান তিনি। রাজধানীতে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহের উদ্বোধন করে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। দেশ যেন কোনভাবেই পিছিয়ে না যায়, সেজন্য ভবিষ্যত প্রজন্মকে সতর্ক থাকার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী।

রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে শুরু হলো বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ-২০১৮। সপ্তাহব্যাপি এই আয়োজনের উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিদ্যুতে বাংলাদেশের নাজুক অবস্থার কারণে ৯৬ সালের ক্ষমতায় এসে এ খাতকে উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।

জানান, দেশের ৯০ ভাগ মানুষ এখন বিদ্যুৎ পাচ্ছে, আর উৎপাদন হচ্ছে ২০ হাজার মেগাওয়াট। ২০৪১ সালে তা দাঁড়াবে ৬০ হাজার মেগাওয়াটে। ভবিষ্যতেও ভারত-নেপাল থেকে বিদ্যুৎ আমদানি অব্যাহত থাকবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

সোলার পাওয়ার গ্রিড স্থাপন, রান্নার কাজের এলপিজি উন্মুক্ত করে দেয়া, কাতার ও ওমান থেকে এলএনজি আমদানির পাশাপাশি স্টোরেজ করার পরিকল্পনার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী। এক্ষেত্রে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা ধরে রাখার পরামর্শ দেন তিনি। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে উদ্যোক্তা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেয়া হয় অনুষ্ঠানে।

সৈয়দ আব্দুল মুহিত, বাংলাভিশন,ঢাকা।

You may also like

সাভারে ট্রাকচাপায় গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন

সাভারে ট্রাকচাপায় এক গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন হয়ে