সারাদেশ

ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক দুই প্রতিবেশি দেশের জন্য রোল মডেল : প্রধানমন্ত্রী

By অনলাইন ডেস্ক

September 10, 2018

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক এখন এমন উচ্চতায়, তা দুই প্রতিবেশি দেশের জন্য রোল মডেল। এই সম্পর্ক আরো গভীর হওয়ার প্রত্যাশা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেছেন, ২০৪১ সালের বাংলাদেশের ভিশন বাস্তবায়নে পাশে থাকবে ভারত। আরো এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির ক্ষেত্রে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্স করে ভারত থেকে পাঁচশ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির লক্ষ্যে ভেড়ামারায় নবনির্মিত এইচভিডিসি দ্বিতীয় ব্লক স্টেশন, আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ বাংলাদেশ অংশের রেল সংযোগ এবং কুলাউড়া-শাহবাজপুর অংশের সংস্কার কাজের উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী।

নয়া দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাউথ ব্লক থেকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদী ও গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এসময় দুদেশের প্রধানমন্ত্রী দেশ দুটির সম্পর্ক আরো নতুন উচ্চতায় নিতে অঙ্গীকার করেন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় আরো বিদ্যুৎ দেয়ার ক্ষেত্রে আগ্রহ জানান। দুদেশের সম্পর্ক চিরস্থায়ী হওয়ার ব্যাপারেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

এর মধ্যে রয়েছে ভারত । দুই প্রধানমন্ত্রী দুই পর্যায়ে মোট পাঁচটি বাংলাদেশ-ভারত রেল, বিদ্যুৎ ও ডিজেল পাইপলাইন উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওই ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ২০৪১ সালের মধ্য প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আরো ৯হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করবে বাংলাদেশ।

একই সঙ্গে বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগীতা করায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা। অন্যদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ২০২১ সালে মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে উপনীত হবার বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সহযোগিতা করতে পেরে ভারত গর্ববোধ করে।

রেল প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৫৩ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ রেল লাইন, সেতু ও কালভার্ট একাধিক স্টেশন ও অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে এবং স্থাপন করা হবে নন ইন্টারলকড কালার লাইট সিগন্যাল ব্যবস্থা। ভিডিও কনফারেন্সে পশ্চিম বঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ও আসামের মূখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ বিকেলে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বেশ কিছু প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন।