ঐক্যফ্রন্টের পয়ত্রিশ দফা ইশতেহার ঘোষনা

নির্বাচিত হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির ক্ষমতার ভারসাম্য, দুই মেয়াদের বেশি প্রধানমন্ত্রী না থাকা, সংসদে উচ্চকক্ষ তৈরি, ৭০ অনুচ্ছেদে পরিবর্তন, পুলিশ ও সামরিক বাহিনীতে ছাড়া চাকুরীতে প্রবেশের বয়সসীমা না থাকা, ত্রিশোর্ধ শিক্ষিত বেকারদের জন্য বেকার ভাতা চালু, বেশি বিচার বহির্ভত হত্যাকান্ড বন্ধ, সকল নাগরিকের জন্য স্বাস্থ্যকার্ড চালু সহ বেশ কিছু চমকের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইশতেহার ঘোষনা করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সকালে রাজধানীর হোটেল পূর্বানীতে ১৪ প্রতিশ্রুতি আর ৩৫ দফা ইশতেহার ঘোষনা করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। ইশতেহারে বলা হয়েছে, ক্ষমতায় গেলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির ক্ষমতায় ভারসাম্য আনা হবে, একটানা দুইবারের বেশি কেউ প্রধানমন্ত্রী থাকতে পারবে না। সংসদের ডেপুটি স্পীকার বিরোধী দল থেকে দেয়া হবে। সবার সাথে আলোচনার মাধ্যমে ৭০ অনুচ্ছেদে পরিবর্তন আনার পাশাপাশি নির্বাচন কালীন সরকারের বিধান তৈরির প্রতিশ্রতিও রয়েছে।

ক্ষমতায় গেলে ত্রিশ বছরের বেশি শিক্ষিত বেকারদের জন্য ভাতা দেয়ার পাশাপাশি অনগ্রসর গোষ্ঠী ও প্রতিবন্ধী ছাড়া সরকারি চাকরিতে কোটা তুলে দেয়া। প্রথম বছরে গ্যাস ও বিদুতের দাম বাড়ানো হবে না। গার্মেন্টস শ্রমিকদের নুন্যতম মুজুরি ১২ হাজার টাকার করাহবে। পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষা বাতিল এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় শিক্ষার্থীদের উপর হামলাকারীদের বিচারের আওতায় আনান হবে। চীনের ওয়ান ওয়ান বেল্ট ওয়ান রুট যে সকল প্রকল্প লাভজনক সেগুলোতে যুক্ত হবে বাংলাদেশ। সমতার ভিত্তিতে ভারতের সাথে সম্পর্ক আরো শক্তিশালী করার কথা বলা হয়েছে ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে।
পেঅফ

You may also like

সুবর্ণচরে ধর্ষণের মামলায় আসামি রুহুল আমিনের জামিন প্রত্যাহার

কথামত ভোট না দেয়ায় নোয়াখালীর সুবর্ণচরে স্বামী-সন্তানকে বেঁধে