ফণীর ক্ষত কাঁদাচ্ছে দেশের বিভিন্ন এলাকার ক্ষতিগ্রস্তদের

ঘূর্ণিঝড় ফণীর ক্ষত কাঁদাচ্ছে দেশের বিভিন্ন এলাকার ক্ষতিগ্রস্তদের। বিধ্বস্ত ঘরবাড়ি ঠিকঠাক করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও কুলাতে পারছে না অনেকে। ফসলের ব্যাপক ক্ষতিতে দিশেহারা কৃষকরা। বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় শঙ্কিত বিভিন্ন নদী পাড়ের মানুষ।

বরগুনায় ক্ষত রেখে চলে গেছে ঘুর্ণিঝড় ফণী। সাড়ে আট হাজার ঘর-বাড়ি আংশিক বা সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে। ভেঙে গেছে ১৭ কিলোমিটার বাধ। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪৪ হাজার ৭০ হেক্টর জমির রবিশষ্য। এ ক্ষত কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে দুর্গতরা। স্বজন হারানোর শোকে কাতর কেউ কেউ।

বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়া আতঙ্ক ভর করেছে নদী পাড়ের মানুষের। পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৭ কিলোমিটার বাধ ভেঙে গেছে। ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার চেষ্টা করছে জেলা প্রশাসন। এদিকে, ফণীর প্রভাবে টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে ফসল রক্ষা বাঁধ ভেঙে জেলার ছয়টি হাওরে পানি ঢুকেছে।

তলিয়ে গেছে বোরো ধান। বিপাকে কৃষকরা। পানি দ্রুত বাড়তে থাকায় কোন কোন হাওরে ধান কাটার অবস্থাও নেই। ফসলের ব্যাপক ক্ষতিতে দিশেহারা জয়পুরহাটের কৃষকরাও। কৃষি বিভাগ জানিয়েছে ফনীর প্রভাবে নষ্ট হয়ে গেছে জেলার প্রায় সাড়ে ১২শ হেক্টর জমির ইরি-বোরো।

You may also like

২৯ মার্চ, রবিবার ২০২০

সকাল ৮:৩০ : দিন প্রতিদিন বেলা ১১:০৫ :