এ বাজেট জনকল্যাণমুখী: প্রধানমন্ত্রী

প্রস্তাবিত বাজেটকে জনকল্যাণমুখী আখ্যা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জানিয়েছেন, ২০২৩-২৪ অর্থবছরে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হার ১০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। শুক্রবার বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো জানান, সুযোগ নিয়েও ঋণের সুদহার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে না আনা ব্যাংক এবং ইচ্ছাকৃত ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে কঠোর ব্যবস্থা। জানান, অপ্রদর্শিত অর্থ উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগের স্বার্থেই যৌক্তিক কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল অসুস্থ থাকায় শুক্রবার বাজেটোত্তর সংবাদিক সম্মেলনে অংশ নেন প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সংবাদ সম্মেলনে বাজেটে নেয়া উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ তুলে ধরেন তিনি। জানান, বাজেটে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি বেকারত্ব ঘোচাতে স্টার্টআপ তহবিলে একশ’ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী জানান, কৃষিপণ্য রপ্তানিতে ২০ শতাংশ প্রণোদনার পাশাপাশি তৈরি পোশাক খাতের নগদ সহায়তাসহ সকল সুযোগ-সুবিধা অব্যাহত থাকবে। নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিতেও নেয়া হবে কার্যকর পদক্ষেপ। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ দেয়ার পক্ষে সরকারের অবস্থান তুলে ধরেন তিনি। সেইসাথে ঋণের সুদহার নয়-ছয় করা ব্যাংক এবং ইচ্ছাকৃত ঋণ খেলাপিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা হুঁশিয়ারি দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের ভালো না চাওয়া রাজনৈতিক দলের কাছে সরকারের কোনোকিছুই ভালো না লাগাটা তাদের অসুস্থতা। নিজের অর্থে দেশের উন্নয়নে কর জিডিপি’র হার ১৫ শতাংশে উন্নীত করার আশ্বাস দেন তিনি। বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিতে না পারা অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর দোয়া চান প্রধানমন্ত্রী।

 

You may also like

বন্যা দুর্গত মানুষ ত্রাণ পাচ্ছে না: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ