এইচএসসি ও সমমানের পাস ৭৩.৯৩ শতাংশ

মাদ্রাসা ও কারিগরী শিক্ষাবোর্ড ছাড়া দেশের সাধারণ আটটি শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে এবার কুমিল্লা বোর্ডে পাশের হার সবচেয়ে বেশি, ৭৭ দশমিক সাত চার। যে অর্জন গত এক যুগ পরে ফিরে পেয়েছে এই বোর্ড। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড, পাশের হার ৭৬ দশমিক তিন আট এবং তৃতীয় হয়েছে যশোর শিক্ষা বোর্ড। তাদের গড় পাশ ৭৫ দশমিক ছয় পাঁচ।

১. পাশের হার সাতাত্তর দশমিক সাত চার নিয়ে, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষায় কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড আছে প্রথম স্থানে। গত এক যুগে কুমিল্লা বোর্ডের ফলাফলে এবারই সর্বোচ্চ পাশের হার। এর আগে, ২০০৮সালে এই শিক্ষা বোর্ডে পাশের পাশের হার ছিলো ৭৭ দশমিক ৩৩।
এবার কুমিল্লা বোর্ডে জিপিএ ফাইভ পেয়েছে দু’ হাজার তিনশ’ ৭৫জন, যা গত ৫ বছরে সর্বোচ্চ। চলতি বছর এই বোর্ডে ৯৪ হাজার তিনশ’ ৬০জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। পাশ করেছে ৭৩ হাজার তিনশ’ ৫৮জন পরীক্ষার্থী। অন্যদিকে, গড় পাসের দিক থেকে ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা কিছুটা এগিয়ে। বোর্ডে শতভাগ পাশ করেছে ৩০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পাশের হার শূণ্য তিনটি কলেজে।

২. এইচএসসি পরীক্ষায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-ফাইভ এর ভিত্তিতে দেশের সাধারণ আটটি শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে দ্বিতীয় রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড।
এই বোর্ডে এবার পাসের হার ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ। আর জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে ৬ হাজার ৭২৯ জন শিক্ষার্থী।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এবারো পাশের হারে এগিয়ে মেয়েরা। তবে জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্তিতে এগিয়ে ছেলেরা। রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এ বছর সাতশ’ ৫৮টি কলেজ থেকে পরীক্ষার্থী ছিল এক লাখ ৫১ হাজার একশ’ ৩৪জন। পাস করেছে এক লাখ ১৩ হাজার ৫শ’ ৫০জন শিক্ষার্থী। শতভাগ পাস করা কলেজের সংখ্যা বেড়ে ৩৪টি হলেও, এবার শূন্য পাসের কলেজের সংখ্যা সাতটি।

৩. এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় যশোর শিক্ষা বোর্ডে পাশের হার বেড়েছে। বেড়েছে জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্তির সংখ্যাও। বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জানান, এবছর এ শিক্ষা বোর্ডে এমন কোনপ্রতিষ্ঠান নেই যেখানে কেউ পাস করেনি। তবে শতভাগ পাস প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কমেছে। যশোর শিক্ষা বোর্ডে এবছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১লাখ ২৬ হাজার ২২৯। পাস করেছে ৯৫ হাজার ৪৯৫ জন। পাসে ছাত্রীদের সংখ্যাই বেশি।

৪. এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় ঢাকা বোর্ডের অধীনে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজসহ ময়মনসিংহের সেরা আটটি কলেজ থেকে এক হাজার আটচল্লিশ জন জিপিএ ফাইভ পেয়েছে। এই বোর্ডের অধীনে বরাবরের মতই সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যহত রেখেছে নরসিংদীর আব্দুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ। এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় ৯৩৯জন শিক্ষার্থী অংশ নেয় এবং একজন বাদে সবাই পাস করেছে। এর মধ্যে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে ৫৭০ শিক্ষার্থী।

৫. বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে এ বছর পাসের হার ৭০ দশমিক ৬৫ শতাংশ, যা গত বছরের চেয়ে একটু বেশি। মোট জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে এক হাজার ২০১ জন। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ৪৩৫, মানবিক বিভাগে ২৮০ এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪৬ জন রয়েছে।

৬. দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে চার হাজার ৪৯ জন। যা গত তিন বছরের তুলনায় এবার বেড়েছে। তবে গত বছরে মত এবারও পাশের হার-এ ছাত্রীরা এগিয়ে থাকলেও, জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্তিতে ছাত্ররা এগিয়ে। এবার অকৃতকার্য হয়েছে ৩৫ হাজার ৮২ জন। এর মধ্যে ইংরেজিতে ফেল করেছে ২৯ হাজার ৬৮ জন পরীক্ষার্থী।

৭. এইচএসসি পরীক্ষায় এবছর চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে মোট জিপিএ-ফাইভ পেয়েছে ২ হাজার ৮৬০ শিক্ষার্থী। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সবচেয়ে ভালো ফলাফল করেছে চট্টগ্রাম কলেজ, এরপরেই রয়েছে হাজী মোহাম্মদ মহসীন কলেজ।

৮. এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৬৭ দশমিক শূণ্য পাঁচ শতাংশ।গতবারের তুলনায় এবার পাশের হার বেড়েছে এই বোর্ডে। একই সাথে বেড়েছে জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্তির সংখ্যাও।

You may also like

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি হতে চলেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই এর নতুন সভাপতি হতে