কুড়িগ্রামে বন্যায় সাড়ে আট লাখ পানিবন্দি, ভোগান্তি চরমে

যমুনা, ব্রহ্মপুত্রসহ দেশের প্রধান নদ-নদীর পানি বিভিন্ন পয়েন্টে বিপদসীমার অনেক ওপরে বইছে। ফলে অপরিবর্তিত রয়েছে কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতি।চরম দুর্ভোগে জেলার প্রায় সাড়ে আট লাখ মানুষ। কুড়িগ্রামে এ পর্যন্ত বন্যার পানিতে ডুবে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪জনে। এদিকে, সিরাজগঞ্জে বানের পানি কমলেও বেড়েছে পানিবাহিত রোগ বালাই। অবনতি হয়েছে শেরপুরের বন্যা পরিস্থিতি।

কুড়িগ্রাম জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত আছে। দুর্গতদের দুর্ভোগ বেড়েছে কয়েক গুণ। খাদ্য নেই। নেই বিশুদ্ধ পানিও। ভেঙ্গে পড়েছে পয়ঃব্যবস্থা। এ ভোগান্তি জেলার প্রায় সাড়ে আট লাখ বানভাসীর। এদিকে, পানি কমলেও কোন মানুষ এখনও ঘরে ফেরেনি। সরকারী ভাবে ত্রাণ শুরু হলেও বেশিরভাগ বন্যার্তদের কাছেই পৌঁছায়নি খাবার। বিশাল এক জনগোষ্টি পানিবন্দী হওয়ায় বিপাকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও।

জেলা প্রশাসনের তথ্যানুযায়ী, ফসলী জমি নষ্ট হয়েছে ২০ হাজার হেক্টর। বন্যায় ৯ হাজার ৭৩৪টি নলকূপ, এক হাজার ২৪৫কিলোমিটার রাস্তা, ৪০ কি.মি বাঁধ ও ৪১টি ব্রীজ/কার্লভার্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৭৫৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। জেলা প্রশাসন থেকে এখন পর্যন্ত ৫ মে.টন জিআর চাল, ১৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা, তিন হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার ও ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে ৬ হাজার ৪২৮ মে.টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে যমুনার পানি কমলেও কমে বানভাসীদের দুর্ভোগ। সেখানে দেখা দিয়েছে পানিবাহিত নানা রোগবালাই। খাদ্য আর বিশুদ্ধ পানির সংকটে তারা। জেলা প্রশাসনের ত্রাণ সহায়তা শুরু হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে জামালপুরের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি এখনও বিপদসীমার অনেক উপরে বইছে। এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দী জেলার পাঁচ লাখ মানুষ। তবে পৌঁছেনি ত্রাণ সহায়তা।

এদিকে, নদী তীরবর্তী এলাকায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। অন্যদিকে, শেরপুরে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপদসীমার ওপরে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থির আরও অবনতি হয়েছে। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ, সদর ও ফুলছড়ি উপজেলার পানি কমতে শুরু করলেও সদর উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়ন নতুন করে প্লাবিত হয়েছে। বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে খাবারের সংকট দেখা দেয়ায় তারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে। বন্যা দুর্গত এলাকায় ছড়িয়ে পড়ছে পানিবাহিত ডায়রিয়া, আমাশয় ও চর্মরোগ।

 

You may also like

আজও আন্দোলনে উত্তাল বুয়েট

আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বুয়েটে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন