মশাবাহিত আর এক রোগ জিকা’র ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

ডেঙ্গুর পর মশাবাহিত আরেক রোগ- জিকার ঝুকিতেও বাংলাদেশ। প্রতিবেশি ভারতে অনেকেই ভুগছে এ ভাইরাসে। বাংলাদেশেও সংক্রামক এ ভাইরাসটি ছড়ানোর শঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। তারা বলছেন, ডেঙ্গুর চেয়েও কয়েকগুণ বেশি ভয়াবহ জিকা। এর জীবাণুবাহী এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি পোকাবাহিত রোগ নিয়ে গবেষণা ও নিয়ন্ত্রণের জন্য আলাদা একটি সংস্থা থাকা জরুরি মনে করছেন তারা। রাজধানীতে ডেঙ্গুর প্রকোপ কিছুটা কমে এসেছে। কিন্তু ঢাকার বাইরে এখনো নিয়মিতই হাসপাতালে কমবেশি ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হচ্ছে। কোনো কোনো এলাকায় এডিস মশা এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার ভাইরাসবাহী এডিস মশা বহন করছে জিকা ভাইরাসের জীবাণুও। তাই ডেঙ্গুর পাশাপাশি জিকা নিয়েও চিন্তিত বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাবে, ভারতে জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত অনেকে। কীটতত্ত্ববিদরা বলছেন, পার্শ্ববর্তী দেশে এর প্রকোপ থাকায় ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশও । তবে এ নিয়ে দেশে কোন প্রস্তুতি নেই। মানব শরীরে জিকা শণাক্তের যথেষ্ট ব্যবস্থাও দেশে নেই।  জিকার ঝুকির কথা স্বীকার করলেন রোগতত্ত্ব , রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষনা ইনস্টিটিউটের পরিচালক সেব্রিনা ফ্লোরা। জানালেন- ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্তদের তথ্য সংগ্রহ করে তারাও নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছেন, জিকা বিস্তৃতি সম্পর্কে। বিশেষজ্ঞ থেকে চিকিৎসক, সবারই তাগিদ- এডিস মশার উৎস ধ্বংসের । মশা নিয়ন্ত্রণে এলেই এসব ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব বলে মত তাদের। আরিফুল হক, বাংলাভিশন, ঢাকা

You may also like

২৩ অক্টোবর, বুধবার ২০১৯

সকাল ৮:৩০ : দিন প্রতিদিন বেলা ১২:০৫ :