ই-পাসপোর্ট উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বহু প্রতীক্ষিত ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট বা ই -পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, জাতির জন্য মুজিব বর্ষে উপহার হচ্ছে ই-পাসপোর্ট। আশা করেন, এর ফলে বাংলাদেশি পাসপোর্টের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বাড়বে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। এতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গলা কাটা পাসপোর্ট নিয়ে ধোঁকায় পড়তে হবে না জনগণকে। ই পাসপোর্ট চালুর ফলে প্রবাসী ও বিদেশযাত্রীরা ভবিষ্যতে আর হয়রানির শিকার হবে না বলেও জানান।

দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম ও বিশ্বের ১১৯তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশে ই-পাসপোর্ট চালু হলো। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ই- পাসপোর্ট তুলে দেয়া হয়। একটি স্মারকও হস্তান্তর করা হয় এ সময়। আপাতত শুধু ঢাকার আগারগাঁও, উত্তরা ও যাত্রাবাড়ি পাসপোর্ট কার্যালয় থেকে এটি দেওয়া হবে। এই পাসপোর্ট হবে ৪৮ ও ৬৪ পাতার। মেয়াদ হবে পাঁচ ও দশ বছর মেয়াদী।

You may also like

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ১১ বছর আজ

বিডিআর বিদ্রোহের ভয়াল ২৫ ফেব্রুয়ারি আজ। ২০০৯ সালের