শীতে কাঁপছে শ্রীমঙ্গল, তাপমাত্রা ৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি

কয়েকদিন বিরতির পর আবারো শৈত্য প্রবাহ শুরু হয়েছে দেশের উত্তরাঞ্চলসহ বিভিন্ন জেলায়। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ছয় দশমিক তিন ডিগ্রী সেলসিয়াস। দেশের উত্তরের সীমান্ত ঘেঁষা জেলা কুড়িগ্রামে আবারও শুরু হয়েছে শৈত্য প্রবাহ। হিমালয়ের কাছাকাছি হওয়ায় শীতের প্রকোপ বেশি অনুভূত হচ্ছে। কনকনে ঠান্ডায় দুর্ভোগে পড়েছে জেলার মানুষ। দিনের তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় ব্যহত হচ্ছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। ঠিক মতো কাজে যেতে না পারায় পরিবার পরিজন নিয়ে অতি কষ্টে দিন পার করছেন খেটে খাওয়া মানুষ।

মাঘ মাসের শুরুতেই শীতের প্রকোপ তীব্র থেতে তীব্রতর হয়েছে আরেক জেলা লালমনিরহাটেও।তাপমাত্রা আরো কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। দিনভর খড়কুটোর আগুন জ্বালিয়ে শরীরে তাঁ দিয়ে ঠান্ডা নিবারনের চেষ্টা করেন সববয়সীরা। শৈত্য প্রবাহ ঘনকুয়াশায় জবুথুবু উত্তরের আরেক জেলা পঞ্চগড়ের মানুষ। তীব্র কুয়াশা আর শৈত্যপ্রবাহে দুর্ভোগে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ ও রিকশা-ভ্যান চালকরা। টানা চার দিন ধরে সূর্যের মুখ দেখেননি জেলাবাসি। দিনের বেলায় যানবাহনগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। জেলার হাসপাতালগুলোতে দিন দিন বাড়ছে শীতজনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

মাঘের শীতে কাহিল রংপুরের জনজীবনও। গত চারদিন ধরে সূর্যের দেখা মেলেনি এই অঞ্চলে। উত্তরের হীম বাতাস আর ভারি কুঁয়াশায় ঢেকে গেছে পথঘাট। মাঘের শীতে কাঁপছে চুয়াডাঙ্গাও। আবারও তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে এ জেলায়। অব্যাহত রয়েছে মাঝারি থেকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। দিনের তাপমাত্রা কিছুটা সহনীয় হলেও বেলা গড়ালেই বাড়ছে শীতের তীব্রতা। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে খেটে খাওয়া ছিন্নমূল মানুষ। জেলার সদর হাসপাতালে বাড়ছে শীতজনিত রোগীর সংখ্যা। কনকনে ঠান্ডায় জুবুথুবু হয়ে পড়েছে উত্তরের জনপদ নাটোর। দিন বাড়ার সাথে সাথে শীতের দাপট খানিকটা থামলেও থামছে না ঠান্ডার প্রকোপ। হাড় কাঁপানো শীতে কাবু শিশু ও বৃদ্ধরা। শীতবস্ত্র কেনার সামর্থ্য না থাকায় শীতার্ত দু:স্থরা তাকিয়ে আছেন সরকারি ত্রাণের দিকে।

 

You may also like

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ১১ বছর আজ

বিডিআর বিদ্রোহের ভয়াল ২৫ ফেব্রুয়ারি আজ। ২০০৯ সালের