যুক্তরাজ্যে করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ব্রিটেনে আরো এক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। প্রতিবেশী দেশ ভারতের মারা গেছে আরো একজন। ইতালিতে একদিনে রেকর্ড আড়াইশ’ জনের মৃত্যু। এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে প্রাণঘাতী এই মহামারীর মূল কেন্দ্র এখন ইউরোপ। স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে বাংলাদেশের ৮ নাগরিক কোভিড–নাইনটিনে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজন সিলেটের, ঢাকার এক দম্পতি ও যশোরের একজন। ঢাকার দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ভারতের রাজধানী দিল্লিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন আরেকজন।

শুক্রবার দিল্লির রামলোহিয়া হাসপাতালে মারা যান ৬৮ বছরের এক বৃদ্ধা। দেশটিতে এখন আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৮৩। ইতালীর পর নাজুক অবস্থা ইরানে। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১১ হাজার। নতুন করে ৮৫ জনের মৃত্যুতে করোনায় এ পর্যন্ত মারা গেছে পাচ শতাধিক ইরানী। এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

পরস্থিতি ঠেকাতে পাঁচশ’ কোটি মার্কিন ডলার সাহায্য তহবিল ঘোষণা করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে এখন করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আড়াই হাজারের কাছাকাছি। দেশটিতে মারা গেছে অর্ধশত। বিশ্বজুড়ে করোনা আতঙ্কে বেশিরভাগ দেশই তাদের দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে। এবার ‘অন–অ্যারাইভাল ভিসা’ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে নেপাল। এর আগে ভারত, পাকিস্তান, ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কাও ‘অন অ্যারাইভাল ভিসা’ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিল।

You may also like

ওয়াশিংটনসহ ২৫টি শহরে কারফিউ

কারফিউ জারি আর ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের মোতায়নের পর