৩১ মার্চ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

৩১ মার্চ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এদিকে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনা মোকাবেলায় স্কুল-কলেজের পাশাপাশি বন্ধ রাখতে হবে কোচিং সেন্টারও। তবে এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। অন্যদিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জানিয়েছেন মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মঙ্গলবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের সব কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়া, করোনা সতর্কতায় বুয়েট, চট্টগ্রামসহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রিসভার বৈঠক । এতে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে, সচিবালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, করোনায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কারণে ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। ছুটির এই সময় শিক্ষার্থীদের বাসায় থাকতে হবে। মঙ্গলবার ১৭ মার্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগেই মুজিব বর্ষের কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। শুধু গাছ রোপনের বিষয়ে প্রধান শিক্ষক বা অন্য শিক্ষকেরা কর্মসূচি নিশ্চিত করবেন।১ এপ্রিল থেকে অনুষ্ঠেয় এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী জানান, কাছাকাছি সময়ে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

অন্যদিকে, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন জানিয়েছেন, জানিয়েছেন মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মঙ্গলবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের যেসব কর্মসূচি হওয়ার কথা ছিল, তা স্থগিত করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর লেখা চিঠিটি শিক্ষার্থীদের হাতে পৌঁছে দেওয়া হবে। এছাড়া করোনা সতর্কতায় ১৮ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। করোনা আতঙ্কে ক্যাম্পাস বন্ধে শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে প্রশাসন ও ডিন কমিটির বৈঠক শেষে এ ঘোষণা দেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান। তবে আবাসিক হলগুলো খোলা থাকবে।

মিজানুর রহমান সবুজ, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

ওয়াশিংটনসহ ২৫টি শহরে কারফিউ

কারফিউ জারি আর ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের মোতায়নের পর