মহান স্বাধীনতা দিবস আজ

আজ ২৬ মার্চ। মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। আত্মত্যাগের অনন্য প্রত্যয়ে বঙ্গবন্ধুর ডাকে একাত্তরের এই দিনে সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে এদেশের মানুষ। রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের সূচনার সেই গৌরব ও অহঙ্কারের দিন আজ। বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনা আতঙ্ক স্বাধীনতা দিবসের আনুষ্ঠানিকতায় ছেদ টানলেও, চেতনায় ছেদ টানতে পারবে না।

দীর্ঘদিনের স্বাধীনতা আন্দোলনের পথ পেরিয়ে প্রতিরোধ যুদ্ধের সূচনা হয় ১৯৭১ এর মার্চে। পরাধীনতার শিকল থেকে মুক্তি পেতে এ মাসের শুরু থেকেই বাংলা জুড়ে তৈরি হয় এক নতুন আবহ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাত মার্চের ভাষণ জাতির আত্মবিশ্বাস আরো বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু, এতকিছুর মাঝেও ষড়যন্ত্র থেমে থাকেনি পশ্চিম পাকিস্তানের। যার নৃশংস প্রমাণ মেলে ২৫ মার্চ ১৯৭১ এর ভয়াল রাতে।

পরদিন ভয়াল সেই কালরাত্রির লাশ আর জননীর কান্না নিয়ে রক্তে রাঙা নতুন সূর্য ওঠে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ। সারি সারি স্বজনের মৃতদেহ। চারিদিকে লাশ, আর বারুদের গন্ধ। জনশূণ্য রাস্তায় তখন পাকিস্তানি সেনা টহল। ২৫ শে মার্চের গণহত্যার পরপরই অস্তিত্ব রক্ষার প্রশ্ন বাঙালির। জ্বলে ওঠে মুক্তিকামী মানুষের চোখ, গড়ে তোলে শক্ত প্রতিরোধ। আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত পাকসেনাদের বিরুদ্ধে নামমাত্র প্রশিক্ষণ নিয়ে মৃত্যুভয় তুচ্ছ করে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাংলার মুক্তিকামীরা। নয় মাসের যুদ্ধ আর ত্রিশ লাখ মানুষের আত্মত্যাগে অর্জিত হয় লাল-সবুজ পতাকা।

ইতিহাসবিদরা বলছেন, সুবর্ণজয়ন্তীর ঠিক আগের বছর। তাই এবারের স্বাধীনতা দিবস খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। স্মরণ করিয়ে দেন স্বাধীনতা মানে দায়িত্ববোধ। পুঁজিবাদী নীতিতে নয়। তেলে মাথায় তেল দিয়ে নয়। বৈষম্যমুক্ত সমাজ ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতেরও তাগিদ বিশ্লেষকদের।

 

তাইমুর রশীদ, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

বিশেষ ব্যবস্থায় সৌদি আরবে চলছে হজের আনুষ্ঠানিকতা

করোনাভাইরাসের কারণে বিশেষ ব্যবস্থায় সৌদি আরবে চলছে হজের