জেলায় জেলায় হোম কোয়ারেন্টিনের সংখ্যা বাড়ছে

নোয়াখালীতে সর্দি-কাশি, জ্বর আক্রান্ত হয়ে এক যুবক মারা গেছেন। করোনা সন্দেহে পুরো ভবনটিকে ঘিরে রেখেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। সাতক্ষীরায় বিদেশ ফেরত আরো ১৫১ জন, রংপুরের আট জেলায় একশ’ ৪ জন, ভৈরবে ৩১ ও খাগড়াছড়িতে ১৪জন কে হোম কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে তেইশ বছর বয়সী এক যুবকের মারা যাবার খবর পেয়ে রাতেই পুরো ভবনটি কোয়ারেন্টিন ঘোষণা করে স্থানীয় প্রশাসন। ওই যুবক চৌমুহনীতে এক দন্ত চিকিৎসকের চেম্বারে সহকারী হিসেবে কাজ করতেন। গত এক সপ্তাহ ধরে তিনি জ্বরে ভুগছিলেন।

বৃহস্পতিবার রাতে তার বমির সাথে রক্ত ঝরতে থাকলে স্বজনরা তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। লাশ পারিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ভৈরবে নতুন করে ৩১ জনসহ ১০৮ জন হোম কোয়ারেন্টিনে আর প্রাতিষ্ঠনিক কোয়ারান্টাইনে আছেন সাত জন। মোট কোয়ারান্টিনে রেজিস্ট্রেশন সংখ্যা ৩৩৮জন। সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় বিদেশ ফেরত আরো ১৫১ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে। এনিয়ে মোট দুই হাজার ৫২ জন হোম কোয়ারেন্টিনে হয়েছে। এদিকে, সাতক্ষীরার ভোমরা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যাওয়া বাংলাদেশি যাত্রীরা দেশে ফিরতে পারলেও লক ডাউনের কারনে ভারতীয়রা তাদের দেশে ফিরতে পারছেন না।খাগড়াছড়িতে জেলা সদর হাসপাতালে করোনায় এক নারী মারা যাওয়ার ঘটনায় দুই চিকিৎসক, দুই নার্স ও এক আয়াকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

বিদেশ ফেরত ২৫৫ জনের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ১৪ জনসহ ১৪৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে নিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এছাড়া কোয়ারেন্টিনে থাকা ৭৭ জন ছাড়াপত্র পেয়েছেন। রংপুরের আট জেলায় নতুন করে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে একশ’ ৪ জনকে। আর গৃহবন্দি থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১শ’ ৭৯ জন। আর করোনা শনাক্তে রংপুর মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে স্থাপন করা হচ্ছে পিসিআর মেশিন। এদিকে, জয়পুরহাটে বিদেশ ফেরৎ নতুন ২৫ জন প্রবাসীকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। জেলায় মোট ২০৬ জন হোম কোয়ারেন্টিনের মধ্যে ১২ জন ছাড়পত্র পেয়েছে এবং একজনকে আক্কেলপুর হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

 

You may also like

ঈদ-উল-ফিতরের ৩য় দিন, ২০২০

সকাল ১০:০৫ : বাংলা চলচ্চিত্র ‘রাজা বাবু’; অভিনয়ে: