কাজে যোগ দিতে এসে বিপাকে গার্মেন্টস শ্রমিকরা

তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের কাজে যোগদানের জন্য বলা হলেও বেশিরভাগ কারখানায় ঝুলছে বন্ধের নোটিশ। মালিকদের এমন খামখেয়ালি সিদ্ধান্তে রাজধানিতে এসে বিপাকে পড়েছেন শ্রমিকরা। ঘোষণা থাকলেও মেলেনি মার্চের বেতন। শ্রমিকদের নিয়ে তৈরি পোশাক খাত মালিকদের এমন ছেলে খেলার সমলোচনা করেছেন বিশ্লেষকরাও।

শ্রমিকরা ঢাকায়। কিন্তু রাজধানীর বেশিরভাগ তৈরি পোশাক কারখানার গেটেই ঝুলছে বন্ধের নোটিশ। বলা হয়েছে ১১ এপ্রিল খুলবে কারখানা। যে কয়কেটি কারখানা খোলা সেখানে কাজ করতে আসা শ্রমিকরা জানালেন তাদের ক্ষোভের কথা। জানালেন কারখানায় এসেও মার্চের বেতন মেলেনি। বেতন না পেয়ে হতাশ শ্রমিকরা।

করোনা পরিস্থিতিতে তৈরি পোশাক কারখানা খুলে দেয়ায় মালিকদের সমলোচনা করেন সিপিডির গবেষক গোলাম মোয়াজ্জেম। ঢাকায় শ্রমিকদের নিয়ে এসে নিজেদের গন্ডির মধ্যেই করোনার সামাজিক বিস্তারের ঝুঁকিতে ফেলা হলো বলেও মনে করেন এই বিশ্লেষক। এর আগে শনিবার কারখানা খুলে দেয়ার ঘোষণায় ব্যাপক সমলোচনার মুখে পড়ে বিজিএমইএ। পরে মধ্যরাতে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধের কথা জানায় সংগঠনটি। কিন্তু এর আগেই ঢাকা অভিমুখে ছুটতে থাকেন লাখো শ্রমিক।

 

You may also like

দেশে আরো ৩৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৪২৩

দেশে করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ