সরকারি চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে দুই আ.লীগ নেতা আটক

হতদরিদ্র মানুষের জন্য খোলা বাজারে বিক্রির সরকারি চাল, কালোবাজারে বিক্রির দায়ে মামলা হয়েছে ফরিদপুরে। এদিকে, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীর করগাঁও খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৩৯ বস্তা চাল কালোবাজারে বিক্রির অপরাধে ডিলার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নিখিল চন্দ্র সরকারসহ দুইজনকে আটক করা হয়েছে। অন্যদিকে, একই অভিযোগে গাইবান্ধার সাঘাটায় এক আওয়ামী লীগ নেতাকে চালসহ হাতেনাতে আটক করা হয়েছে।

ফরিদপুরে ওএমএস এবং দশ টাকা কেজি দরের সরকারি চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে, স্থানীয় প্রভাবশালী আক্কাস শেখের বিরুদ্ধে দু’টি মামলা হয়েছে। সদর উপজেলার অম্বিকাপুর বাজারে ভ্যান বোঝাই করে সরকারি চাল নিয়ে যাওয়ার সময় জনতা তাকে আটক করে। এরপর পুলিশ আক্কাসের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ১৩ বস্তা চাল জব্দ করে। এদিকে, জেলার সদরপুর উপজেলায় চরনাছিরপুর ইউনিয়নের দরিদ্র কার্ডধারীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে চাল বিক্রির অভিযোগে ডিলার করিম মোল্লাকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অন্যদিকে, গাইবান্ধার সাঘাটার পুদুমশহর ওর্য়াড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাজেদ রহমানকে তিন হাজার কেজি ১০ টাকা মূল্যের চাল কালোবাজারে বিক্রির সময় হাতেনাতে আটক করে স্থানীয়রা পুলিশে সোপর্দ করে। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির প্রায় ১৫শ’ কেজি চাল জব্দ করে পুলিশ। খোয়া যাওয়া আরো ১৫শ’ কেজি চাল উদ্ধারের বিষয়ে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সাঘাটা থানা পুলিশ।

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার মেরং-এ ১০ টাকা মূল্যের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৭০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্রেতা দেলোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়েছে। তবে পালিয়েছে ডিলার, মেরুং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জহির হোসেন। আটক দেলোয়ার জানান, ৩০ কেজি ওজনের প্রতি বস্তা চাল এক হাজার টাকা করে জহিরের কাছ থেকে তিনি কিনেন। ওএমএস’এর চাল চুরির অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা জহির হোসেনকে বহিস্কার করা হয়েছে। এদিকে, মাটিরাঙার তাইন্দং ও গোমতি থেকে ১৮৬ বস্তা সরকারি চাল চুরির ঘটনায় যুবলীগ ও শ্রমিক লীগের পাঁচ নেতাকে আসামী করে আল আদা মামলা হয়েছে।

নড়াইলের শাহাবাদ ইউনিয়নের বিষ্ণুপুরে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ১০টাকা কেজি দরের চাল ওজনে কম দেয়ার অপরাধে শাহাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ডিলার আসাদুজ্জামান আসাদকে দুই মাসের কারাদন্ড ও ১০হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া, আসাদুজ্জামানের ডিলারশিপও বাতিল করা হয়েছে।

সাতক্ষীরার মাধবকাটি বাজার থেকে সরকারের খাদ্যবান্ধবের ৫ হাজার ৮শ’ কেজি চাউল অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রাখার অভিযোগে ডিলার শফিউর রহমানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অন্যদিকে, দিনাজপুরের বিরামপুরে সরকারি বরাদ্দকৃত খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ বস্তা চাল আত্মসাতের সময় একজনকে আটক করেছে স্থানীয় লোকজন।

You may also like

ভারত থেকে বিশ্বকাপ সরিয়ে নেয়ার হুমকি আইসিসির

২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ছে