জনকল্যাণমূলক কাজে পুলিশ সদস্যরা

করোনা পরিস্থিতিতে স্বল্প সুরক্ষা সরঞ্জাম নিয়ে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা, করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃতদেহ দাফন ও কর্মহীন দুঃস্থ, অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য বিতরণসহ নানা জনকল্যাণমূলক কাজ করছেন পুলিশ সদস্যরা। রয়েছে ভয়, সংক্রমণের ঝুঁকি, তবুও দায়িত্বে অনড় তারা। ঝিনাইদহ ও কুড়িগ্রাম প্রতিনিধির পাঠানো তথ্য-ছবিতে ডেস্ক রিপোর্ট।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঝিনাইদহে সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে অন্যদের সাথে কাজ করছে পুলিশ বাহিনীও। যদিও তাদের নেই পর্যাপ্ত সুরক্ষা সরঞ্জাম। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি প্রকট স্বত্বেও, ঝিনাইদহের বিভিন্ন ইউনিটের পুলিশ সদস্যরা, কখনও অসহায়কে খাদ্য সহায়তা, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা কিংবা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তির দাফনের কাজ করছেন।

করোনা পরিস্থিতিতে পুলিশ সদস্যদের কারোর পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ নেই অনেকদিন। তারপরও এই মহামারীতে দায়িত্ব এড়াতে চান না তারা। বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দেয়ায় স্বস্তিতে কর্মহীন এসব মানুষ। পুলিশের সব ইউনিটের নিরাপত্তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, জানান পুলিশ সুপার।

এদিকে, করোনা পরিস্থিতে কুড়িগ্রামের কর্মহীন নিম্ন এবং মধ্যবিত্তদের বাড়ি-বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন পুলিশ সদস্যরা। শহর-গ্রামের পাশাপাশি দুর্গম চরাঞ্চলবাসীও এই সুযোগ পাচ্ছেন। কুড়িগ্রামের ১১টি থানায়ই জেলা পুলিশের ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

বাংলাভিশন নিউজডেস্ক।

You may also like

যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমণের রেকর্ড

করোনা মহামারিতে বিশ্বে গেলো কয়েকঘন্টায় আরো দেড় হাজার