করোনার কারণে এবার হজ হবে সীমিত পরিসরে

বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারির কারণে এ বছর সীমিত আকারে পবিত্র হজ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি সরকার। বাইরের কেউ এবার হজে অংশ নিতে পারবেন না। শুধু সৌদি নাগরিক আর সেদেশে বসবাসরত ভিনদেশী মুসলমানরাই সীমিত সংখ্যায় হজ করতে পারবেন। এদিকে, ধর্ম সচিব নূরুল ইসলাম জানিয়েছেন, বাংলাদেশ থেকে যারা এ বছর হজে যেতে নিবন্ধন করেছিলেন, চাইলে তাদের টাকা ফেরত দেয়া হবে। টাকা ফেরত না নিলে পরের বছর হজে তাদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

সৌদি আরবে এরইমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৬১ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃত্যু বরন করেছে এক হাজার তিনশ’ সাত জন। করোনার প্রাদুর্ভাবের কারনে এবারের হজ হবে কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা ছিলো। এই অবস্থার মধ্যে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রনালয় সোমবার জানায়, সীমিত আকারে পবিত্র হজ অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বাইরের দেশের কেউ এ বছর হজে অংশ নিতে পারবেন না। শুধু সৌদি নাগরিক আর সেদেশে বসবাসরত ভিনদেশী মুসলমানরাই সীমিত সংখ্যায় হজে অংশ নিতে পারবেন। সৌদি সরকারের হজ মন্ত্রনালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত ঘোষনায় বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এ বছর হজ পালন করতে হবে সবাইকে।

করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিন আবিস্কার না হওয়া এবং বিশালসংখ্যক মানুষের সামাজিক দুরত্ব পালনের সুযোগ না থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এদিকে, এ বছর হজের জন্য যেসব বাংলাদেশি নিবন্ধন করেছিলেন তাদেরকে আগামি বছরে প্রাধান্য দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন হাব সভাপতি। সৌদি সরকারের এ সিদ্ধান্তে ধর্ম মন্ত্রনালয়ের নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, যারা এ বছর হজে যেতে নিবন্ধন করেছিলেন, চাইলে তাদের টাকা ফেরত দেয়া হবে। প্রতিবছর বিশ্বের প্রায় ২৫ লাখ মুসলিম হজ পালন করেন। করোনার কারণে এবছর ওমরাহ হজও স্থগিত করে সৌদি সরকার।

আহাম্মেদ সরোয়ার, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

দেশে করোনায়ও তৎপর কিশোর গ্যাং

করোনার এই কঠিন সময়েও দেশের বিভিন্ন শহরে কিশোর