১০৫ বছর বয়সী বরের সঙ্গে ৮০ বছরের কনের বিয়ে, ঘুম নেই গ্রামবাসীর

একশ’ পাঁচ বছরের বৃদ্ধ আর আশি বছরের বৃদ্ধার বিয়ের ধুমে, ঘুম নেই নাটোর সদরের পুকুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামবাসীর। পারিবারিক সিদ্ধান্তেই বৃদ্ধ আহাদ আলী বিয়ে করেছেন ছোট ভাইয়ের বিধবা স্ত্রীকে। বর-কনের সঙ্গী হয়েছিলেন তাদের ছেলে-মেয়ে ও নাতি-নাতনীরা। নাটোর প্রতিনিধি কামরুল ইসলামের রিপোর্ট।

পাড়া জুড়ে নারী-শিশুদের ভীড়। সবাই এসেছে কনে বিদায় দিতে। ব্যতিক্রমী এক বিয়ের আয়োজন নাটোর সদরের পুকুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে। বর ১০৫ বছর বয়সী আহাদ আলী মন্ডল, যার স্ত্রী মারা গেছেন এক যুগ আগে। আর কনে, ৮০ বছরের বৃদ্ধা আমেনা বেগমের স্বামী মারা গেছেন প্রায় ১০ বছর আগে।

আহাদ আলীর চার ছেলে ও তিন মেয়ের আলাদা সংসার। পান-সিগারেট বিক্রি করে নিজের খরচ চালান তিনি।এই বৃদ্ধ বয়সে বিয়ের জন্য রাজি না হলেও গ্রামবাসীর অনুরোধে প্রয়াত ছোট ভাইয়ের স্ত্রী আমেনা বেগমকে বিয়ে করতে সম্মতি দেন। এদিকে, আমেনার দুই মেয়ে। বিয়ের পর তাঁরা শ্বশুরবাড়িতে। নিঃসঙ্গতা কাটাতেই এ সিদ্ধান্ত তিনি রাজী হয়েছেন।

আমন্ত্রণ ছাড়াই এরকম আয়োজনে যোগ দেন শতাধিক মানুষ। গ্রামবাসীই উদ্যোগী হয়ে বউভাতের আয়োজন করেন। নিঃসঙ্গতা কাটিয়ে জীবনের শেষ সময়টুকু একে অপরের সৌহর্দ্য আর ভালবাসায় সুখে থাকবেন এই দম্পতি, প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।

বাংলাভিশন নিউজডেস্ক।

You may also like

কবি আবদুল হাই মাশরেকীর ৩২তম মৃত্যুবার্ষিকী কাল

বাংলা কাব্য সাহিত্যের মাটি ও মানুষের কবি আবদুল