বাংলাদেশ কারো সাথে যুদ্ধ চায় না: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ কারো সাথে যুদ্ধ চায় না, তবে যে কোন পরিস্থিতির জন্য সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে। দুর্যোগে- দুঃসময়ে বিশেষ করে করোনা মোকাবেলায় সেনাসদস্যদের ভূমিকার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা। বলেন, আধুনিক ও শক্তিশালী একটি সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করলো সেনাবাহিনীর তিনটি ব্রিগেড সদর ও পাঁচটি ইউনিট। পটুয়াখালীর লেবুখালীতে শেখ হাসিনা সেনানিবাসে এই অনুষ্ঠান হয়। গণভবন থেকে এতে ভার্চুয়ালি অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী।

পরে প্রধানমন্ত্রী, সেনাবাহিনীর উন্নয়নে প্রতিরক্ষা নীতি প্রণয়নসহ বঙ্গবন্ধুর নেয়া নানা পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন।  সংবিধান, দেশ, দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সেনাবাহিনীর দায়িত্বের কথা স্মরণ করিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে সরকার বিস্তর কর্ম পরিকল্পনা নিয়েছে। এর ধারাবাহিকতা রক্ষায় সেনাবাহিনীকে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান তিনি। আরিফুল হক, বাংলাভিশন, ঢাকা

You may also like

গোল্ডেন মনিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি এলাকাবাসির

গোল্ডেন মনিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও তার বাবার নামে