আসবাবপত্র ক্রয়ে দুর্নীতির দায় নিতে রাজী নয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, আসবাবপত্র ক্রয়ে অনিয়মের সাথে রূপপুর প্রকল্পের সরাসরি সম্পৃক্ততা নেই। তবে এই অনিয়মের সংবাদ ভবিষ্যতের জন্য সতর্কবার্তা। একইসঙ্গে প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা নিয়ে যে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে তা সঠিক নয় বলেও দাবি করেন মন্ত্রী। অন্যদিকে, গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম বলেছেন, তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে কেনা-কাটায় অনিয়মের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। টাকার অঙ্কে দেশের সবচে বড় প্রকল্প রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এই প্রকল্পের আবাসন খাতে কেনাকাটায় অনিয়ম নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। সেখানে বড় ধরণের দুর্নীতির তথ্য প্রকাশ পায়। একইসঙ্গে প্রকল্পে যারা কাজ করছেন তাদের বেতন-ভাতা নিয়েও বেশ কিছু তথ্য প্রকাশ করে বিভিন্ন গণমাধ্যম।

এসব অনিয়মের বিষয়ে সোমবার একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয় বাংলাদেশ পরমানু শক্তি কমিশন। সেখানে দাবি করা হয়, বেতন-ভাতার ব্যাপারে যেসব তথ্য দেয়া হয়েছে তা অবান্তর। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী বলেন, রূপপুর প্রকল্পের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নের চেষ্টা চলছে। রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের গ্রিন আবাসন প্রকল্পে আসবাব-পত্র কেনা-কাটায় অনিয়ম প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এটি প্রকল্পের স্বচ্ছতা নিশ্চিতে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক সংকেত। অন্যদিকে, গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, অনিয়মের বিষয়টি কঠোরভাবে দেখা হবে। রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বিশ্বে দেশের জন্য রোল মডেল। তাই এ প্রকল্পের স্বচ্ছতা নিশ্চিতে সরকার সচেষ্ট বলেও জানান তারা।

 

 

You may also like

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে শুরু হয়েছে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট যুদ্ধ

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে আবারো শুরু হয়েছে ভারত- পাকিস্তান