বুয়েট প্রশাসন আরো সতর্ক থাকলে খুন হতো না আবরার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন বলেছেন, বুয়েট প্রশাসন আরো সতর্ক হলে আবরার হত্যার ঘটনা হয়তো ঘটতো না। অন্যদিকে, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, এজাহারে নাম না থাকলেও আবরার হত্যায় সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলেই গ্রেফতার করা হবে। রাজধানীতে আলাদা দু’টি অনুষ্ঠানে তারা এসব কথা বলেন। বুয়েট শেরে বাংলা হলের নিচতলার ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ। ছয় অক্টোবর রবিবার রাতে দ্বিতীয় তলার ২০১১ নম্বর কক্ষে তাকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। সারারাতের নির্মম নির্যাতনের পর হত্যা করা হয় আবরার ফাহাদকে।

ভোরে তার মরদেহ পাওয়া যায় হলের সিঁড়ির গোড়ায়। পরের দিন আবরার হত্যায় ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে চকবাজার থানায় মামলা করে আবরারের বাবা। এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়েছে ১৭ জনকে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন জানান, অতি দ্রুত সময়ে সকল আসামি গ্রেফতার করে চার্জশীট দেয়া হবে। এদিকে, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, আবরার হত্যার মোটিভ সম্পর্কে এখনো পরিস্কার ধারণা পাননি তারা।  হত্যায় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ জড়িত সবাইকে আইনের মুখোমুখি করা হবে বলেও জানান গোয়েন্দারা।

You may also like

২৪ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার ২০১৯

সকাল ৮:৩০ : দিন প্রতিদিন বেলা ১১:০৫ :