খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি রবিবার

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি রবিবার। বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করানোর অনুমতি চেয়ে বেগম জিয়ার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন। এর আগেও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া জামিনের আবেদন করেছেন। কিন্তু তার জামিন হয়নি। এবার জামিনের জন্য বিশেষ যুক্তি তুলে ধরেছেন তার আইনজীবীরা। আবেদনে বলা হয়েছে, বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে অনেক বেশি খারাপ। এমন অবস্থায় বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করানোর কোন বিকল্প নেই। তাই যুক্তরাজ্যে নিয়ে তাঁকে চিকিৎসা করানোর কথা উল্লেখ করা হয়েছে জামিন আবেদনে।

দুদকের আইনজীবী বলেন, জামিন আবেদনের বিরোধিতা করে আদালতে আইনি যুক্তি তুলে ধরবেন তিনি। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড পেয়ে বন্দি রয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। আপিলের পর হাইকোর্টে যা বেড়ে ১০ বছর হয়। পরে ২০১৮ সালের ১৮ নভেম্বর খালাস চেয়ে আপিল বিভাগে খালেদা জিয়া জামিন আবেদন করেন। একই বছরের অক্টোবরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বেগম জিয়াকে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিলো আদালত। দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে কারাবন্দী রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন।

আরিফুল হক, বাংলাভিশন, ঢাকা

You may also like

রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন ডাক্তার সাবরিনা

রিমান্ডের প্রথম দিনে গোয়ান্দারের কাছে জেকেজির প্রতারণা নিয়ে