নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড

অস্ট্রেলিয়া, ভারতের পর তৃতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। ডারহ্যামে নিউজিল্যান্ডকে ১১৯ রানে হারিয়ে এই যোগ্যতা অর্জন করে ক্রিকেটের জনকরা। জনি বেয়াস্টোর ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ডের ৩০৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে, ১৮৬ রানে অল আউট হয় ব্ল্যাক-ক্যাপসরা। নিউজল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে; সে লক্ষ্যে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে কিউই বোলারদের উপর ঝড় বাইয়ে দেয় ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী জুটিতে ১২৩ রান যোগ করে, দলের বড় ইনিংসের ভীত গড়ে দেন জনি বেয়ারস্টো ও জেসন রয়। যদিও ৬০ রান করে ফিরে যান রয়।

এরপর জো রুট ও বাটলারকে নিয়ে প্রথম ২৫ ওভারে ১৬১ রান তুলে বেয়ারস্টো। তবে রুট ২৪ এবং বেয়ারস্টো ১০৬ রানে বিদায় নিলে; রান তোলার গতি কমে যায় ইংল্যান্ডের। এরপর বেন স্টোকস ১১ এবং অধিনায়ক মরগান ৪২ করে ফিরলে; ৮ উইকেটে ৩০৫ রানে সন্তুষ্ট থাকে স্বাগতিকরা। জবাবে টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় ৬৯ রানে চতুর্থ এবং ১২৮ রানে ৬ষ্ঠ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে কিউইরা। শেষ দিকে টম ল্যাথাম ৫৭ রান করলেও; বড় পরাজয় এড়াতে পারেনি নিউজিল্যান্ডের। এই জয়ে ৯ ম্যাচে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। সমান খেলায় ১১ পয়েন্ট নিয়ে ঝুলে আছে নিউজিল্যান্ডের ভাগ্য। ৫ জুলাই পাকিস্তান যদি বড় ব্যবধানে টাইগারদের হরাতে পারে, তাহলে রান রেটে ভাগ্য নির্ধারন হবে চতুর্থ দল হিসেবে কে যাবে সেমিফাইনালে- নিউজিল্যান্ড না পাকিস্তান।

You may also like

আজও আন্দোলনে উত্তাল বুয়েট

আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বুয়েটে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন