১৮ মাসের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন সাকিব!

সাকিবের বিরুদ্ধে জুয়াড়ির তথ্য গোপন করার অভিযোগ তদন্ত করে দেখছে আইসিসি। প্রমান মিললে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৮ মাস পর্যন্ত নিষিদ্ধ হতে পারেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। এই শংকা মাথায় নিয়ে সাকিব ভারত সফরে যাবেন কিনা, সেটাই আজ জানাবে বিসিবি। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত এই খবরের পর থেকে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

আন্তর্জাতিক ম্যাচে এক জুয়াড়ির কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েও তা গোপন করেছিলেন সাকিব। আইসিসির নিয়ম অনুসারে যা গুরুতর অপরাধ। তেমন হলে ১৮ মাসের নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। এ ধরনের অপরাধে ৬ মাস থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞার শাস্তি দেয়ার বিধান আছে আইসিসির। ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ইস্যুতে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপান সংবাদ মাধ্যমে কথা বলার সময় ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ইঙ্গিত দিলেও আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

এর আগে, একটি টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করে বিসিবির শর্ত ভাঙ্গার অভিযোগ ওঠে সাকিবের বিরুদ্ধে। সেই ইস্যুতেও তাকে শোকজ করার ব্যাপারে অনড় থাকার কথা জানায় বিসিবি। সবশেষে ভারত সফরের দুই প্রস্তুতি ম্যাচেও নিজের ইচ্ছায় খেলেননি এই অলরাউন্ডার। এই ঘটনার পর থেকেই তার ভারত সফরে না যাওয়া নিয়ে গুঞ্জন ডানা মেলে।

You may also like

ঘূর্ণিঝড়ে পশ্চিমবঙ্গে ৬০ হাজার ঘর-বাড়ির ক্ষতি

বুলবুলের আঘাতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১