বন্ধ ক্রিকেট একাডেমি গুলোর কোচিং, অসহায় কোচরা

মহামারি করোনায় বন্ধ ক্রিকেট একাডেমিগুলোর কোচিং কার্যক্রম। উপার্জনের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অসহায় হয়ে পড়েছেন কোচরা। আর্থিক সংকটে অনেকটাই মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। সাংসারিক অনটনের পাশাপাশি অনেকেই অসুস্থ। অর্থাভাবে পারছেন না চিকিৎসা করাতে। এমন দুর্যোগে দেশের ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থার বিসিবি’র সহযোগিতা আশা করছেন তারা।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে পুরো বিশ্বের মতো স্থবির বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনও। মাঠে নেই খেলা। বন্ধ অনুশীলনও। বিকেএসপির পর বাংলাদেশের ক্রিকেটের মুল ভিত্তি হলো ক্রিকেট একাডেমিগুলো। ঢাকাতেই বিসিবির তালিকাভুক্ত একাডেমি আছে ৮৬টি। করোনা সংকটে কোচিং বন্ধ থাকায় ক্ষতির মুখে পড়েছে ক্রিকেট একাডেমিগুলো। এই একাডেমিগুলোতে কোচিংয়ে যাদের রুটি রুজি হয় সেই কোচরাও এখন চরম দুরাবস্থায়।

হাজার হাজার ক্রিকেটার তৈরির কারিগর একাডেমির কোচরা দেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে রেখে যাচ্ছেন অনন্য ভুমিকা। তাদের হাত ধরেই আজকের জাতীয় ও বয়সভিত্তিক পর্যায়ের ক্রিকেটাররা গড়ে উঠেছেন। অথচ দু:সময়ে তারা অবহেলিত। আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবনযাপনে বাধ্য হচ্ছেন তারা। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ায় এখন আশা করছেন বিসিবির সহযোগিতার। বিসিবির তালিকাভুক্ত ছাড়াও সারাদেশে এক হাজারেরও বেশি একাডেমি আছে। কোচ আছেন প্রায় দুই হাজার জন।

মানিক মাহমুদ
বাংলা ভিশন ঢাকা।

You may also like

ফোনালাপ ফাঁসের তদন্ত দাবি এমপি নিক্সনের

ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী