রক্ত পরীক্ষা করেই ক্যানসার নির্ণয়

রক্ত পরীক্ষা করেই অন্তত দু’ধরনের ক্যানসার নির্ণয় করা যেতে পারে বলে দাবি করলেন মার্কিন বিজ্ঞানীরা। সম্প্রতি একটি নামী আন্তর্জাতিক চিকিৎসা-গবেষণা সংক্রান্ত জার্নালে গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে।

জর্জিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির কিছু বিজ্ঞানী এবং আরও অন্য কয়েক জন বিজ্ঞানীর একটি দল ইঁদুরের উপর পরীক্ষা চালিয়ে সফল হয়েছেন বলে দাবি। একটি বিশেষ ধরনের রক্তপরীক্ষা করে তাঁরা রক্তের ক্যানসার এবং ত্বকের ক্যানসার নির্ণয় করতে সফল হয়েছেন।

গবেষকেরা জানিয়েছেন, নন হজকিন্স লিম্ফোমা নামে একটি বিশেষ ধরনের রক্তের ক্যানসার এবং সাবকিউটোনিয়াস মেলানোমা নামে মারাত্মক ত্বকের ক্যানসার হলে রোগীর কোষে কিছু জৈবরাসায়নিক পরিবর্তন হয়। স্পেকট্রোস্কোপি নামে একটি যন্ত্রের মাধ্যমে ইনফ্রারেড রশ্মিকে টিউমারের মধ্য দিয়ে চালনা করার ফলে সেই পরিবর্তনগুলি ধরা পড়ছে বলে দাবি করেছেন গবেষকেরা।

তাঁরা জানিয়েছেন, একই সঙ্গে বেশ কিছু রোগগ্রস্ত এবং সুস্থ ইঁদুরকে পরীক্ষাগারে একসঙ্গে রাখা হয়েছিল। ইনফ্রারেড রশ্মির মাধ্যমে পরীক্ষা চালিয়ে সহজেই অসুস্থ ও সুস্থ ইঁদুরগুলিকে আলাদা করা গিয়েছে। চিকিৎসক ও গবেষকদের মতে, প্রতি বছর মূলত সাদা চামড়ার মানুষদের মধ্যে ত্বকের ক্যানসার তিন থেকে সাত শতাংশ করে বাড়ছে।

রক্ত ও ত্বকের ক্যানসার নির্ণয়ের জন্য এখনও প্রধানত টিস্যু কালচার ও বায়োপ্সি পদ্ধতি ব্যবহৃত হয় যা খরচসাপেক্ষ, ব্যয়বহুল এবং সময়সাপেক্ষ। এ দিকে রোগ নির্ণয়ে যত দেরি হবে, ক্যানসার তত ছড়িয়ে পড়বে। সে দিক থেকে ইনফ্রারেড পদ্ধতি সহজ, সুলভ এবং তাতে কম সময়ে সঠিক রোগ নির্ণয় সম্ভব বলে দাবি করেছেন গবেষকেরা।

You may also like

জার্মানীতে বন্দুক হামলা, নিহত ১১

জার্মানীর পশ্চিমাঞ্চলীয় হানাউ শহরে দু’টি সিসা বারে গুলিবর্ষণের