স্মার্টফোনে দ্রুত চার্জ দেওয়ার উপায়

স্মার্টফোনে দ্রুত চার্জ ফুরায়। তাই রোজ নিয়ম করে ফোনে চার্জ দিতে হয়। কিন্তু সব সময় নিয়ম করে চার্জ দেয়া হয়ে ওঠে না। সবসময় চেষ্টা করা উচিত ফোনের ব্যাটারি ২০% নেমে এলেই আবার চার্জে বসিয়ে দেওয়ার। ব্যাটারি জিরোতে নেমে আসার আগেই ফোনে চার্জ দেওয়া জরুরি। আর একবার চার্জে বসালে ফোনটি অন্তত ৯০% পর্যন্ত একবারে চার্জ করা প্রয়োজন। তবে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছে ১০০% পর্যন্ত চার্জ না করা ফোনের ব্যাটারির স্বাস্থের জন্য ভালো।

কখনই সারারাত চার্জে রাখবেন না নিজের স্মার্টফোনটি। এতে মারত্মক ক্ষতি হয় আপনার ফোনের ব্যাটারির। তাই খুব জলদি বদলে ফেলা প্রয়োজন আপনার এই অভ্যাস। নয়তো খুব তাড়াতাড়ি কমে যাবে আপনার ফোনের ব্যাটারি ব্যাক আপ। আমাদের সবারই অভ্যাস রাতে ঘুমাতে গিয়ে ফোনটি কিছু সময় ব্যবহার করতে করতে ঘুমিয়ে পড়ার।

মাথার পাশে এইভাবে ফোন রেখে ঘুমানো খুবই বিপজ্জনক। ফোন থেকে সারারাত রেডিয়েশনে হতে পারে ক্যান্সার। এছাড়াও মাথার পাশে চার্জে রাখলে ফোন থেকে ম্যাগনেটিক রে থেকে হতে পারে বিভিন্ন রোগ।

সারা রাত মোবাইলে চার্জ দিয়ে, ফোনের ক্ষমতাকে নিজের অজান্তেই একটু একটু করে নষ্ট করছেন আপনি। গ্যাজেট গুরুরা জানাচ্ছেন, যারা নিজের স্মার্টফোন রাতে চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন, তারা গড়ে বছরে তিন থেকে চার মাস মোবাইল চার্জে ব্যয় করেন। এতে একদিকে যেমন ইলেকট্রিক বিল বাড়ছে, অন্যদিকে মেয়াদ ফুরোচ্ছে ফোনেরও।

তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মোবাইল ফোনের চার্জ ১৫ থেকে ২০ শতাংশে নেমে গেলেই চার্জে বসান। এর থেকে বেশি চার্জ থাকলে মোবাইল চার্জে বসানোর কোনও প্রয়োজন নেই। আর মোবাইলের ব্যাটারির আয়ু বাড়াতে ফোনটিকে সবসময় যত সম্ভব ঠান্ডা পরিবেশে রাখার চেষ্টা করুন।

You may also like

সাভারে ট্রাকচাপায় গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন

সাভারে ট্রাকচাপায় এক গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন হয়ে