চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন: সহিংসতায় নিহত ২

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। বুধবার সকালে ভোট শুরুর পর থেকে নগরীর বেশ কয়েকটি জায়গায় সংঘর্ষ হয়। এর মধ্যে পাহাড়তলীতে ও খুলশীর দুই কেন্দ্রে সংঘর্ষে অন্তত দু’জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ।

সকাল ১০টার দিকে খুলশী ইউসেপ স্কুল কেন্দ্রে সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে আলাউদ্দিন আলো নামের একজন নিহত হয়েছেন। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, ভোট শুরুর কিছুক্ষণ পরই নগরীর ১২ নম্বর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের বার কোয়ার্টার এলাকায় আপন ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে আরেক ভাই খুন হয়েছেন। নিহত নিজাম উদ্দিন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থী সাবের আহমেদের কর্মী। ছুরিকাঘাতকারী ভাই সালাউদ্দিন কামরুল একই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নুরুল আমিনের কর্মী। নির্বাচন নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কিছুদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর জেরে নির্বাচনে ভোট শুরুর আগে তুমুল ঝগড়া শুরু হয় তাদের। পরে মুন্নাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় কামরুল।

এছাড়া, সকাল ৮টা ১৫ মিনিটের দিকে লালখানবাজারে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসনাত বেলাল এবং বিদ্রোহী প্রার্থী এফ কবির মানিকের কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষণের ঘটনা হয়। এর আগে রাতে পাহাড়তলীতে আওয়ামী লীগের ওয়াসীম উদ্দিন চৌধুরী ও বিএনপির জাহাঙ্গীর আলম দুলালের কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

You may also like

আইজিপি’র সাথে বিএনপির বৈঠক

পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের সাথে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশ