পাঁচবিবির কন্যার স্বর্ণ জয়

৪৪তম বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাথলেটিক্স ২০২০-২১ আসরে (ডিসকাস থ্রো) চাকতি নিক্ষেপ খেলায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবির উচাই গ্রামের কন্যা জাফরিন। গত ১৭ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এবারের আসরে নৌবাহিনীর পক্ষে অংশগ্রহণ করে দেশ সেরার খেতাব অর্জন করে। 

 স্বর্ণজয়ী অ্যাথলেট জাফরিন

জাহাঙ্গীর আলম মাষ্টারের মেয়ে জাফরিন, ২০১১ সালে জুনিয়র অ্যাথলেটিক্সে অংশ নেন। চাকতি নিক্ষেপে প্রথম স্থান অর্জন করলে ২০১৪ সালেই জাফরিন জাতীয় আসরে প্রথম সুযোগ পায় এবং ২য় স্থান অর্জন করে। জাফরিনের এমন উজ্জ্বল সফলতা দেখে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে তার চাকরি হয় এবং নৌবাহিনীর পক্ষে দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন ক্রীড়া আসরে অংশ নিয়ে একের পর এক সফলতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। তিনি ২০১৪-২১ সাল পর্যন্ত জাতীয় অ্যাথলেটিক্সে অংশগ্রহণ করে ১ম অথবা ২য় স্থান অর্জন করে আসছেন।
চাকতি নিক্ষেপের পাশাপাশি জাফরিন শটপুটেও অংশ নিয়ে বরাবরই দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন। তিনি স্কুল জীবন থেকেই উপজেলা, জেলা, বিভাগীয়ভাবে অনুষ্ঠিত ক্রীড়া আসরে চাকতি নিক্ষেপে অংশ গ্রহণ করে বরাবরই প্রথম স্থান অর্জন করেন। উচাই গ্রামের স্কুল থেকে এসএসসি পাশ করে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বিকেএসপি’তে ভর্তি হন। সেখানে খেলাধূলার পাশাপাশি এইচএসসি পাশ করেন। বর্তমানে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের লক্ষে কুষ্টিয়া ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা চালিয়ে যাচ্ছেন।
বাবা জাহাঙ্গীর আলম (মাষ্টার) বলেন, “আমার মেয়ে জাফরিন আক্তার সবাইকে পিছনে ফেলে এবারের ৪৪-তম বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাথলেটিক্সে ২০২০-২১ আসরে (ডিসকাস থ্রো) চাকতি নিক্ষেপ খেলায় প্রথম স্থান অর্জন করে স্বর্ণ পদক জিতে নেয়। আমার এক ছেলে দুই মেয়ে সবাই বিকেএসপি থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ক্রীড়ার সঙ্গে জড়িত এবং সবাই সফল। মেয়ের এমন সফলতায় মা-বাবা, ভাই-বোন, আত্মীয় স্বজন ও পাড়া-প্রতিবেশী সবাই খুশি বলে তিনি জানান।”
জাফরিনের ভাই শাহিউল আলম শুভ ভাল বাস্কেটবল খেলার সুবাদে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে চাকরি করেন এবং তাদের পক্ষেই বিভিন্ন ক্রীড়া আসরে খেলাধূলা করেন। ছোট বোন জাকিয়া সুলতানা বিকেএসপিতে পড়ালেখার পাশাপাশি টেনিস ও শুটিংয়ে ভর্তি হলেও, ক্রিকেটে তার আগ্রহ বেশি হওয়ায় ক্রিকেট বিভাগে ভর্তির অপেক্ষায় রয়েছে।

You may also like

বাইডেন-ট্রুডো’র প্রথম বৈঠক

প্রথমবারের মতো বৈঠক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন