মঙ্গলে বাড়ি; বাসযোগ্য স্থানের মানচিত্র তৈরি করেছে ‘নাসা’

বসতি স্থাপনের উপযোগী জায়গার ম্যাপ প্রণযন করেছে 'নাসা'

মঙ্গলগ্রহের কোথাও কোথাও ভবিষ্যতে মানুষ ঘর-বাড়ি তৈরি করে থাকতে পারবে, এমনটাই জানিয়েছেন আমেরিকান মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ‘নাসা’। জানা গেছে, নাসা এরই মধ্যে বসবাসের জায়গাগুলো নিয়ে একটি মানচিত্রও তৈরি করেছে।

মানুষের বসতি গড়ে তোলার প্রথম শর্ত হলো পানির পর্যাপ্ত যোগান। নাসা দাবি করছে, ওইসব তাদের চিহ্নিত জায়গায় বসতি গড়ে তুললে পানির কোনো অভাব হবে না। এই প্রথম মঙ্গলগ্রহে বসবাসযোগ্য জায়গাগুলোর সন্ধান দিয়েছে নাসা। নেচার অ্যাস্ট্রোনমি নামের একটি বিজ্ঞানবিষয়ক জার্নালে নাসার প্রকাশিত মানচিত্র জায়গা পেয়েছে। সেই সব জায়গাগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেছে তারা।

মঙ্গল গ্রহে করা যাবে বাড়ি

নাসার তিনটি মহাকাশযান ‘মার্স ওডিসি’, ‘মার্স রিকনাইস্যান্স অরবিটার’ ও ‘মার্স গ্লোবাল সার্ভেয়ার’ (এমজিএস) ওইসব এলাকায় পানির সন্ধান দিয়েছে। এই তিন মহাকাশযানের পাঠানো তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই মানচিত্র তৈরি করেছে নাসা।

নাসার তথ্যমতে, লাল গ্রহের উত্তর গোলার্ধের মেরু এলাকাগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি রয়েছে বলে জানিয়েছে নাসা। ওইসব এলাকায় পানি ভূপৃষ্ঠের অনেকটা নিচে নেই। ফলে সেই পানি তুলে আনার কাজটাও সহজ হবে। অবশ্য পানিগুলো এখন বরফ আকারে রয়েছে। তবে তাপমাত্রার তারতম্যের জন্য পানি মাটির উপরেও বেরিয়ে এসেছে বলে জানিয়েছে নাসা।

প্রায় ২০ বছর ধরে এ জায়গাগুলো খুঁজে নেয়ার চেষ্টা করছিল আমেরিকান মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র। ২০১৫ সালের পর থেকে বেশকিছু জায়গা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তাদের হাতে আসতে থাকে। নাসা জানায়, মঙ্গলের উত্তর মেরুর বিস্তীর্ণ এলাকার পানি দিয়ে চাষবাদ করাও যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে। সেই পানি থেকে হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন গ্যাস বের করে রকেটের জ্বালানি হিসেবেও কাজে লাগানো যেতে পারে।

 

বিভি/এনজি

You may also like

স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছে নয় বিশিষ্টজন ও এক প্রতিষ্ঠান

দেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার এবারের স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন