অবশেষে সফলভাবেই অনুষ্ঠিত হল ট্রাম্প-কিম বৈঠক

অবশেষে সফলভাবেই অনুষ্ঠিত হল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের বহু প্রতিক্ষিত বৈঠক। ফলাফলও এসেছে ইতিবাচক। দু’দফা বৈঠকের পর দ্রুততম সময়ে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র বিলুপ্তিকরণ প্রক্রিয়ায় সিদ্ধান্ত আসে। পূর্ব পরিস্থিতি পর্যালোচনায় যুগান্তকারী এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে একটি চুক্তি সই করেন দুই শীর্ষ নেতা।

মাসের পর মাস পাল্টাপাল্টি হুমকির পর অবশেষে মুখোমুখি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। ১৮শ’ শতকের মাঝামাঝি থেকে ধারাবাহিক নানা ঘটনায় চরম বৈরী দু’দেশের সম্পর্কোন্নয়নের বিরল দৃশ্যের স্বাক্ষী হলো বিশ্ববাসী। সিঙ্গাপুরের সান্তোসা দ্বীপের মূল ভেন্যুতে প্রারম্ভিক শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে দোভাষীদের নিয়ে প্রায় ৪০ মিনিট একান্তে বৈঠক করেন ট্রাম্প ও কিম।

এরআগে, সাংবাদিকদের প্রশ্নে জবাবে ইতিবাচক সাঁয় দেন দুই নেতা। একান্ত বৈঠক শেষে সফর সঙ্গী হিসেবে সিঙ্গাপুরে যাওয়া রাষ্ট্রের শীর্ষ কর্মকর্তাদের নিয়ে আলাদা বৈঠক করেন ট্রাম্প ও কিম। এখানেও আলোচনার মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্কের দূরত্ব কমিয়ে বড় বড় সমস্যা সমাধানের আভাস দেন তিনি।

শেষমেষ বহু প্রতিক্ষিত একটি চুক্তি সই করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও উত্তর কোরিয়ার নেতা। চুক্তি অনুযায়ী দ্রুততম সময়ে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রিকরণ শুরু হবে। বিনিময়ে উত্তর কোরিয়ার নিরাপত্তা নিশ্চিতের দায়িত্ব নেবে যুক্তরাষ্ট্র। ব্ন্ধ হবে দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে মার্কিন সেনাদের যৌথ মহড়া। এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প জানান, খুব শিগগিরই কিম জং উনকে আমন্ত্রণ জানানো হবে হোয়াইট হাউজে।

শুধু বৈঠক আর গুরুত্বপূর্ণ নথি সইয়ের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিলো না দুই নেতার ঐতিহাসিক সাক্ষাৎ। একসাথে, দুপুরের খাবারও খেয়েছেন তারা। প্রায় পাঁচ ঘন্টার আনুষ্ঠানিকতা শেষে সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানান, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণকেন্দ্রগুলো শিগগিরই ধ্বংস করতে রাজি হয়েছেন কিম জং উন। তবে, উত্তর কোরিয়ার ওপর আরোপিত মার্কিন অবরোধ কবে প্রত্যাহার হবে সে বিষয়টি দুই নেতার স্বাক্ষরিত নথি বা ট্রাম্পের সংবাদ সম্মেলন কোথাও স্পষ্ট হয়নি।

এই সফলতাকে স্বাগত জানিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করেছেন বিশ্ব নেতারা। বিশ্বশান্তির জন্য একে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে দেখছেন তারা। তবে, ঐতিহাসিক এই বৈঠককে স্পষ্টতই কিম জং উনের বিজয় হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকদের অনেকে।

You may also like

সাভারে ট্রাকচাপায় গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন

সাভারে ট্রাকচাপায় এক গার্মেন্টস শ্রমিকের পা বিচ্ছিন্ন হয়ে